বাড়ি প্রচ্ছদ

জনগণের উন্নয়ন কাজ তদারকিতে সিটিজেন পোর্টালের ভূমিকা অনন্য

0
জনগণের উন্নয়ন কাজ তদারকিতে সিটিজেন র্পোটালের ভূমিকা অনন্য#সংবাদ শৈলী

স্টাফ রিপোর্টার
সরকারি ক্রয়ে স্বচ্ছতার মাধ্যমে দেশে টেকসই উন্নয়ন নিশ্চিতে সংশ্লিস্টদের সক্রিয় অংশ গ্রহন নিশ্চিত করতে একটি ই-জিপি(ইলেক্ট্রনিক গর্ভমেন্ট প্রকিউরমেন্ট)সচেতনতা মূলক কর্মশালা বৃহস্পতিবার (০৮ডিসেম্বর, ২০২২) নাটোরে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়েরসম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত হয়।
গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের বাস্তবায়ন পরিবীক্ষণ ও মূল্যায়ন বিভাগের (আইএমইডি) অধীন সেন্ট্রাল প্রকিউর মেন্ট টেকনিক্যাল ইউনিট (সিপিটিইউ) এ কর্মশালার আয়োজনকরে।
বিশ্ব ব্যাংকের অতিরিক্ত অর্থায়নে সিপিটিইউর ডিজিটাইজিং ইমপ্লিমেন্টেশন মনিটরিং অ্যান্ড পাবলিক প্রকিউর মেন্ট প্রজেক্টের (ডিআইএমএপিপি) আওতায় অনুষ্ঠিত কর্মশালা বাংলাদেশ সেন্টার ফর কমিউনিকেশন প্রোগ্রামের (বিসিসিপি) সহায়তায় আয়োজন করা হয়।
মোঃ আজিজ তাহের খান, পরিচালক (যুগ্মসচিব), সিপিটিইউ, আইএমইডি, পরিকল্পনা মন্ত্রণালয় কর্মশালায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন।
শামীম আহমেদ, জেলা প্রশাসক ও জেলা ম্যাজিস্ট্রেট, নাটোর-এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত কর্মশালায় নাটোর অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোঃ নাদিম সারোয়ার সহ অন্যান্য সরকারি কর্মকর্তা উপস্থিত ছিলেন।
ডা. জিনাত সুলতানা, প্রোগ্রাম ডিরেক্টর, বিসিসিপি স্বাগত বক্তব্য রাখেন এবং সিটিজেন পোর্টাল এবং সকল স্তরের মানুষের জন্য এর কার্যকারিতা নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করেন।
জনগণের অর্থের র্সব্বোত্তম ব্যবহার নিশ্চিত কল্পে সরকারি ক্রয়ে ব্যাপক ডিজিটাইজেশনের উদ্দেশ্যে সিপিটিইউ নানাবিধ পদ্ধতিই-জিপি সিস্টেমে অর্ন্তভূক্ত করেছে সে সবের উল্লেখ করে মোঃআজিজ তাহের খান এ সবের যথাযথ প্রয়োগের উপর গুরুত্ব আরোপ করেন ।
মেহের আফরোজ, ডেপুটি ডিরেক্টর, বিসিসিপি কর্মশালায় ই-জিপি সম্পর্কে একটি উপস্থাপনা করেন।
উপস্থাপনায় দেশের উন্নয়ন কাজের অগ্রগতি বিষয়ে সার্বিক ধারণা পেতে এবং উন্নয়ন কাজের গুণ গত মান নিশ্চিতে সিটিজেন র্পোটালের মাধ্যমে সরাসরি তদারকির জন্য জনগণকে সক্রিয় ও কার্যকর ভাবে সম্পৃক্ত করতে ই-জিপি র্পোটালের পাশাপাশি সিটিজেন র্পোটালকেও আরো ব্যাপক ভাবে সবার কাছে তুলে ধরার উপর জোর দেয়া হয় ।
মো: আব্দুস সালাম, প্রোগ্রাম ম্যানেজার, বিসিসিপি-র সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত কর্মশালায় ক্রয়কারী সংস্থা, দরপত্র দাতা এবং সাংবাদিক সহমোট ৭৫জন অংশ গ্রহণ কারী অংশ গ্রহণ করেন।

পুলিশ বেষ্টনীতে নাটোরে বিএনপির বিক্ষোভ সমাবেশ

0

স্টাফ রিপোর্টার 

বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে পুলিশের গুলিবর্ষণ, হামলা, কেন্দ্রীয় নেতাদের গণগ্রেফতার, পুলিশের গুলিতে পল্লবী থানা স্বেচ্ছাসেবক দল নেতা মকবুল হোসনকে নিহতের প্রতিবাদে কেন্দ্রীয় কর্মসূচীর অংশ হিসেবে নাটোরে বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে জেলা বিএনপি ।

আজ বৃহ¯পতিবার বিকেল ৫ টায় শহরের আলাইপুরের জেলা বিএনপির দলীয় কার্যালয়ের সামনে এই কর্মসুচি পালন করা হয়। কর্মসূচি চলাকালে বিপুল সংখ্যক পুলিশ সমাবেশ ঘিরে রাখে এবং মিছিলে বাঁধা দেয় । মিছিল করতে না পেরে তাৎক্ষনিক নেতাকর্মীরা দলীয় কার্যালয়ের সামনে সমাবেশ করে । এ সময় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, জেলা বিএনপির ভারপ্রাপ্ত আহব্বায়ক শহিদুল ইসলাম বাচ্চু,সদস্য সচিব রহিম নেওয়াজ, বিএনপি নেতা ফরহাদ আলী দেওয়ান শাহীন, সাইফুল ইসলাম আফতাব , স্বেচ্ছাসেবক দল নেতা আসাদুজ্জামান আসাদ ।

সমাবেশে বক্তারা বলেন, আগামী ১০ ডিসেম্বরের সমাবেশকে কেন্দ্র করে দলীয় নেতা কর্মিরা কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে গেলে বিনা উস্কানীতে বিএনপি কর্মি মকবুলকে হত্যা করে। শত শত কেন্দ্রীয় নেতা কর্মীদের অন্যায়ভাবে গ্রেফতার করেছে। দ্রুত সময়ের মধ্যে গ্রেফতারকৃতদের নিঃশর্ত মুক্তি দেওয়া সহ মকবুল হত্যার বিচার দাবী করেন। এছাড়াও আগামী ১০ ডিসেম্বরের ঢাকায় মহাসমাবেশে যোগ দিয়ে সমাবেশ সফল করার আহব্বান করেন নেতা কর্মিদের।

সমাবেশ চলাকালীন সময়ে কোন ধরনের বিশৃংখলা ঘটাতে না পারে সেজন্য দলীয় কার্যালয় এলাকা পুলিশ ঘিরে রাখে।

গুরুদাসপুর দলিল লেখক সমিতির সভাপতি  মোশাররফ সম্পাদক এহসান 

0

 

স্টাফ রিপোর্টার 

নাটোরের গুরুদাসপুর দলিল লেখক সমিতির ত্রি-বার্ষিক নির্বাচনে সভাপতি পদে নির্বাচিত হলেন মো. মোশাররফ হোসেন (প্রাপ্ত ভোট ৬৬) ও সাধারন সম্পাদক এহসান আহমেদ ( প্রাপ্ত ভোট ৮১) এবং কোষাধ্যক্ষ পদে মিজানুর রহমান (প্রাপ্ত ভোট ৮৭) নির্বাচিত হয়েছেন।

উল্লেখ্য, সভাপতি পদে ৭জন এবং সাধারন সম্পাদক পদে ৩ জন ও কোষাধ্যক্ষ পদে ৩জনসহ অন্যান্য পদে মোট ১৭জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন।

বৃহস্পতিবার (৮ ডিসেম্বর) গুরুদাসপুর দলিল লেখক কার্যালয়ে সকাল ৯ টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত বিরতিহীনভাবে ১৯৬ ভোটারের মধ্যে ১৯৫ ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন। প্রধান নির্বাচন কমিশনারের দায়িত্ব পালনকারী উপজেলা সাব রেজিস্টার শামীমা পারভীন বেসরকারীভাবে ফলাফল ঘোষনা শেষে বলেন, উৎসবমুখর পরিবেশে অবাধ ও সুষ্ঠুভাবে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। তিনি গুরুদাসপুর থানা পুলিশ, স্থানীয় সাংবাদিকসহ নির্বাচন সংশ্লিষ্ট সবার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন।

 

ভারতের সাথে  বাংলাদেশের সিরিজ জয়

0
ভারতের সাথে  বাংলাদেশের সিরিজ জয়#সংবাদ শৈলী

সংবাদ শৈলী রিপোর্ট

প্রথম দুই ম্যাচ জিতেই তিন ম্যাচের সিরিজ জিতে নিয়েছে বাংলাদেশ।মিরপুর শেরেবাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে প্রথম ম্যাচে এক উইকেটে জয়ের পর আজ লিটন দাসরা জিতল ৫ রানে।

বাংলাদেশের দেওয়া ২৭২ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে ৯ উইকেটে ২৬৬ রান করতে সক্ষম হয়েছে ভারত। ফিল্ডিংয়ের সময় রোহিত শর্মা চোট পাওয়ায় ভারতের ইনিংসের সূচনা করেন বিরাট কোহলি ও শিখর ধাওয়ান। দ্বিতীয় ওভারে কোহলিকে বোল্ড করে দেন এবাদত হোসেন। ৬ বলে মাত্র ৫ রান করেন কোহলি। এরপর ধাওয়ানকে মেহেদী হাসান মিরাজের সহজ ক্যাচ বানান ‘কাটার মাস্টার’ মুস্তাফিজুর রহমান। ওয়াশিংটন সুন্দর ১১ ও লোকেশ রাহুল ১৪ রানে সাজঘরে ফিরলে ৬৫ রানে ৪ উইকেট হারায় ভারত।

পঞ্চম উইকেটে ১০৭ রানের জুটি গড়েন শ্রেয়াস আয়ার ও অক্ষর প্যাটেল। এরপর ১০২ বলে ৮২ রান করা আয়ারকে আউট করেন মিরাজ। আর ৫৬ বলে ৫৬ রান করা অক্ষরকে ফেরান এবাদত হোসেন। দলীয় ২১৩ রানে দীপক চাহার বিদায় নিলে বাংলাদেশের জয় পাওয়াটা খুব সহজই মনে হচ্ছিল। কিন্তু সবাইকে অবাক করে দিয়ে ব্যাট করতে নামেন চোটাক্রান্ত রোহিত। ঝোড়ো ফিফটিতে বাংলাদেশের হাত থেকে ম্যাচটা বের করেই নিচ্ছিলেন তিনি। শেষ দুই বলে ১২ রান দরকার ছিল ভারতের। সে সময় রোহিত মুস্তাফিজকে ছক্কা হাঁকালে শেষ বলে ৬ রানের প্রয়োজন হয় তাদের। তবে শেষ বলটি ডট দিয়ে বাংলাদেশের জয় নিশ্চিত করেন মুস্তাফিজ। ৪৫ রানে তিন উইকেট নিয়েছেন এবাদত।

এর আগে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৭ উইকেটে ২৭১ রান সংগ্রহ করে বাংলাদেশ। ৬৯ রানে ৬ উইকেট হারানোর পর বাংলাদেশকে লজ্জার হাত থেকে বাঁচান মেহেদী হাসান মিরাজ ও মাহমুদ উল্লাহ রিয়াদ। ৯৬ বলে ৭৭ রান করে মাহমুদ উল্লাহ ফিরলেও মিরাজ হাঁকান ওয়ানডে ক্যারিয়ারের প্রথম শতক। মাত্র ৮৩ বলে ৪টি চার ও ৮টি চারের সাহায্যে ১০০ রানে অপরাজিত থাকেন এই অলরাউন্ডার। ব্যাট হাতে শতক আর বল হাতে দুই উইকেট নিয়ে ম্যাচসেরা হয়েছেন মিরাজ।

বাংলাদেশ হবে উন্নত সমৃদ্ধ বাংলাদেশ : প্রধানমন্ত্রী

0
বাংলাদেশ হবে উন্নত সমৃদ্ধ বাংলাদেশ : প্রধানমন্ত্রী#সংবাদ শৈলী

সংবাদ শৈলী রিপোর্ট

 প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, বিএনপি এ দেশকে মানি লন্ডারিং, জঙ্গিবাদ-সন্ত্রাস এবং লুটপাট ছাড়া আর কিছু দিতে পারেনি। তারা তিন হাজার মানুষ আগুন দিয়ে পুড়িয়েছে। ৫০০ মানুষকে হত্যা করেছে।

আজ বুধবার কক্সবাজারে শেখ কামাল স্টেডিয়ামে জেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য তিনি এসব কথা বলেন।

শেখ হাসিনা বলেন, এ দেশের মানুষ বারবার ভোট দিয়ে নির্বাচিত করেছে বলেই দেশের জন্য কাজ করতে পারছি। দেশের উন্নয়ন হচ্ছে। ২০১৪ ও ২০১৮ সালে জনগণ আওয়ামী লীগকে ভোট দিয়েছে বলেই দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। তাদের ভোট বৃথা যায়নি।

প্রধানমন্ত্রী এ সময় জনগণের উদ্দেশে বলেন, আপনারা আমাদের ভোট দিয়েছেন নৌকা মার্কায়। আমরা এই কক্সবাজারের উন্নয়ন করেছি। পরপর তিনবার ক্ষমতায় আসতে পেরেছি। ধারাবাহিকভাবে ২০০৯ সাল থেকে এই ২০২২ সাল পর্যন্ত ধারাবাহিকভাবে গণতান্ত্রিক পদ্ধতি আছে বলেই এদেশের উন্নয়ন হচ্ছে। বাংলাদেশের উন্নয়নশীল দেশের মর্যাদা পেয়েছে।

শেখ হাসিনা বলেন, বাংলাদেশ উন্নয়নশীল দেশের মর্যাদা পেয়েছে। উন্নয়নশীল দেশ হিসেবে বাংলাদেশকে আমরা নিয়ে যেতে চাই, উন্নত-সমৃদ্ধ দেশ হিসেবে গড়ে তুলবো। ২০৪১ সালের মধ্যে এই বাংলাদেশ হবে উন্নত সমৃদ্ধ বাংলাদেশ। যে বাংলাদেশের স্বপ্ন জাতির পিতা দেখেছেন।

এ সময় খালেদা জিয়া এবং এরশাদের সরকার দেশকে কিছুই দেয়নি বলে মন্তব্য করেন তিনি।

জনসভায় আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরসহ কেন্দ্রীয় ও স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতারা বক্তব্য রাখেন।

কক্সবাজারের রামুতে পাহাড়ধসে চারজনের মৃত্যু

0
কক্সবাজারের রামুতে পাহাড়ধসে চারজনের মৃত্যু#সংবাদ শৈলী

সংবাদ শৈলী রিপোর্ট

কক্সবাজারের রামুতে পাহাড়ধসে একই পরিবারের তিন সদস্যসহ চারজনের মৃত্যু হয়েছে। আজ বুধবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে উপজেলার কাউয়ারখোপ ইউনিয়নের লট উখিয়াঘোনা এলাকার জাদি পাহাড় ধসে এ দুর্ঘটনা ঘটে। ইটখোলার মাটি কাটার কারণেই পাহাড়ধসের ঘটনা ঘটে বলে অভিযোগ স্থানীয়দের।পাহাড়ধসের ঘটনায় নিহতরা হলেন একই পরিবারের আজিজুর রহমান (৫০), তার স্ত্রী রহিমা বেগম (৪৫), মা দিল ফরাজ বেগম (৭০)। এ ছাড়া নাসিমা বেগম (২০) নামের এক তরুণীর মৃত্যু হয়েছে।

রামু উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ফাহমিদা মুস্তফা ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, ‘রাতেই লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। লাশ দাফনের জন্য প্রশাসনের পক্ষ থেকে সরকারিভাবে আর্থিক সহযোগিতা দেওয়া হয়েছে  ।’

রামুর কাউয়ারখোপ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শামশুল আলম বলেন, ‘সন্ধ্যার পর তারা রাতের খাবার (ভাত) খাওয়ার সময় হঠাৎ পাহাড়ধস হয়। এ সময় মাটিচাপা পড়ে ঘটনাস্থলেই চারজনের মৃত্যু হয়। ’

স্থানীয়দের অভিযোগ, জাদি পাহাড়ের পাশে গড়ে ওঠা কয়েকটি ইটভাটার জন্য ওই পাহাড়ি এলাকা থেকে মাটি কাটা হচ্ছিল। এ কারণে পাহাড়টি ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় ছিল। এতে পাহাড়ধসের ঘটনা ঘটতে পারে।

রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপি-পুলিশ সংঘর্ষ, রাবার বুলেটে নিহত ১

0
রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপি-পুলিশ সংঘর্ষ, রাবার বুলেটে নিহত ১#সংবাদ শৈলী

সংবাদ শৈলী রিপোর্ট

ঢাকায় আগামী ১০ ডিসেম্বর গণসমাবেশ সামনে রেখে গত দুই দিনের মতো আজও নয়াপল্টনে দলীয় কার্যালয়ের সামনে জড়ো হয়েছেন বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা। সকাল থেকে দলীয় কার্যালয়ের সামনের সড়কে অবস্থান নিয়ে নয়াপল্টনে সমাবেশ করার পক্ষে স্লোগান দেন তারা।

এ সময় তাদের ছত্রভঙ্গ করতে টিয়ার শেল নিক্ষেপ করেছে পুলিশ। আজ বুধবার বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে রায়টকার দিয়ে টিয়ার শেল নিক্ষেপ করে পুলিশ।

অন্যদিকে স্লোগান দিয়ে পাল্টা ইটপাটকেল ছুড়তে থাকেন বিএনপির নেতাকর্মীরা। এক পর্যায়ে ফকিরাপুল মোড় এলাকা রণক্ষেত্রে পরিণত হয়। পুলিশের ছোড়া অসংখ্য টিয়ার শেল ও সাউন্ড গ্রেনেডে ধোঁয়াচ্ছন্ন হয়ে পড়ে দলীয় কার্যালয় ও এর আশপাশ এলাকা।

রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে পুলিশের সঙ্গে বিএনপি নেতাকর্মীদের সংঘর্ষের ঘটনায় রাবার বুলেট বিদ্ধ হয়ে একজনের মৃত্যু হয়েছে। আজ বুধবার বিকেলে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নেওয়ার পর তার মৃত্যু হয়। প্রাথমিকভাবে তার নাম মকবুল বলে জানা গেছে। তবে বিস্তারিত পরিচয় জানা যায়নি।

উদ্ধারকারী জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী মোস্তাফিজুর রহমান জানিয়েছেন, পার্টি অফিসের সামনে রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে ছিলেন দেখতে পেরে তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে এলে কর্তব্যরত চিকিৎসক বিকেল পৌনে ৪টায় মৃত ঘোষণা করেন।তিনি আরো বলেন, নিহতের শরীরে প্রচুর ছররা গুলির চিহ্ন রয়েছে।

সত্যতা নিশ্চিত করে ঢামেক পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ পরিদর্শক মো. বাচ্চু মিয়া বলেন, মৃতদেহটি ময়নাতদন্তের জন্য দেখা হয়েছে।

আহতরা হচ্ছেন মকবুল, রনি, মনির, আনোয়ার ইকবাল, খোকন, আসাদুজ্জামান, বিপ্লব হাওলাদার, আরেফিন আহামেদ, মেহেদী হাসান, জহির। তাদেরকে জরুরি বিভাগে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। আহতদের শরীরে কম-বেশি ছররা গুলির চিহ্ন রয়েছে বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।

 

নেচে গেয়ে মঞ্চ  মাতালেন সাঁওতালী শিল্পীরা

0

স্টাফ রিপোর্টার 

নাটোর জেলা বই মেলায় নেচে গেয়ে ম মাতালেন আদিবাসী সাঁওতাল সম্প্রদায়ের শিল্পীরা। মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৬টায় নাটোর শহরের কানাইখালী মাঠে জেলা প্রশাসনের সার্বিক সহযোগীতায় ‘বাংলার বর্ণিল সংস্কৃতি, ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী সম্প্রদায়ের সাংস্কৃতিক বৈচিত্র্য’ স্লোগানকে সামনে রেখে ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী শিল্পীদের অংশগ্রহণে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করে জেলা শিল্পকলা একাডেমী। অনুষ্ঠানের সার্বিক তত্ত্বাবধানে ছিলেন জেলা শিল্পকলা একাডেমী অফিসার আব্দুল রাকিবিল বারী। অনুষ্ঠান স ালনা করেন জাতীয় আদিবাসী পরিষদ নাটোর জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক কালিদাস রায়। সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে অংশ নেয় নাটোর সদর উপজেলার ‘নশরতপুর আদিবাসী জাগরনী সাংস্কৃতিক দল’ এর ২৩ জন শিল্পী। অনুষ্ঠানের শুরুতেই সাঁওতালী শিল্পীরা দেশের স্বাধীনতা সংগ্রামের উপর গুরুত্বারোপ ও শ্রদ্ধা রেখে দলীয় সংগীত পরিবেশন করেন। এসময় সাঁওতালী ভাষায় রচিত গানে মহান মুক্তিযুদ্ধে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্ব ও অবদান তুলে ধরা হয়। পরে অনুষ্ঠানে ঘন্টাব্যাপী সেগমেন্টে সাঁওতালী শিল্পীরা তাদের মনোমুগ্ধকর পরিবেশনা উপহার দেন। অনুষ্ঠানের পুরোটা সময় ধরে দর্শনার্থীরা বৈচিত্র্যময় পরিবেশনা উপভোগ করেন। সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে সাঁওতালী শিল্পীদের মধ্যে অংশগ্রহণ করেন, সর্মিলা হেমব্রম, শ্রাবনী হেমব্রম, রুমা টডড, ক্রিস্টিনা সরেন, অর্পিতা কিসকু, বর্ষ সরেন, মহেশ হেমব্রম প্রমূখ।

 

জাতীয় আদিবাসী পরিষদের নাটোর জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক কালিদাস রায় জানান, জেলা পর্যায়ে এই ধরণের অনুষ্ঠানের আমাদের শিল্পীদের অংশগ্রহণের সুযোগ পাওয়ায় আমরা আনন্দিত এবং জেলা শিল্পকলা একাডেমী কর্তৃপক্ষের প্রতি বিশেষ কৃতঙ্গতা জানাই। ভবিষ্যতে এই ধরণের সুযোগ পেলে আমাদের শিল্পীরা আদিবাসীদের নানা বৈচিত্র্যময় সংস্কৃতি তুলে ধরার সুযোগ পাবে।

 

জেলা শিল্পকলা একাডেমী অফিসার আব্দুল রাকিবিল বারী জানান, বাংলাদেশ ভূখন্ডের জনসংখ্যার অনেকগুলো ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী রয়েছে। বাংলাদেশের ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর সংখ্যা প্রায় ১৫ লক্ষ ৮৭ হাজার যা সমগ্র জনগোষ্ঠির প্রায় এক শতাংশের মতো (১.১১%)। এর মধ্যে নাটোর অ লে প্রায় ২০,৫৩০জন ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর বসবাস। ২০১৯ সালের ২৩ মার্চ ৫০টি ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীকে গেজেটভুক্ত করা হয় যার মধ্যে নাটোরে বসবাসরত রয়েছে ওঁরাও, মুন্ডা, পাহাড়ী, মাল পাহাড়ী, সাঁওতাল, গঞ্জু, মাহাতো, তেলী, বাগদি, মালো। প্রতিটি সম্প্রদায়ের মানুষ একটি স্বকীয় বৈশিষ্ট্যের অধিকারী। প্রতিটি সম্প্রদায়ের রয়েছে আলাদা আলাদা সাংস্কৃতিক বৈচিত্র্য। বাংলাদেশ এসব ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর বৈচিত্যময় ও বর্ণিল সংস্কৃতি সংরক্ষণের চেষ্টা করে যাচ্ছে প্রতিনিয়ত। তারই ধারাবাহিকতায় বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির নির্দেশনায় ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী সম্প্রদায় সাঁওতালদের পরিবেশনায় বাংলার বর্ণিল সংস্কৃতি শীর্ষক সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। ভবিষ্যৎে চেষ্টা থাকবে গেজেটভুক্ত ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী সম্প্রদায়দের নিয়ে আরো বেশি সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান আয়োজনের। এছাড়া প্রতিটি সাংস্কৃতিক পরিবেশনায় তাদেরকেও পর্যায়ক্রমে অন্তর্ভূক্ত করা হবে।

 

কন্যাশিশু দিবস উপলক্ষে নাটোরে স্কুল কলেজের শিক্ষার্থীদের নিয়ে নানা আয়োজন

0
স্টাফ রিপোর্টার
নাটোরে বাল্যববিয়ে রোধ, কন্যাদের অধিকারসহ নানা সচেতনতায় স্কুল কলেজের শিক্ষার্থীদের নিয়ে নানা কর্মসুচি অনুষ্ঠিত হয়েছে।  বুধবার দুপুরে শহরের অনিমা চৌধুরী অডিটরিয়ামে এই কর্মসুচির আয়োজন করা হয়। আন্তর্জাতিক উন্নয়ন সংস্থা রুম টু রিডের উদ্যোগে অনুষ্ঠিত এই সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রশাসক শামীম আহমেদ।  জেলা শিক্ষা অফিসার আখতার হোসেনের সভাপতিত্বে ও সংস্থার সিনিয়র প্রোগ্রাম অফিসার ফ্লোরা আক্তারের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত সমাবেশে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন সংস্থার ফিল্ড ম্যানেজার জয়নাল আবেদীন ও বিষয়ভিত্তিক তথ্য উপস্থাপন করেন প্রোগ্রাম অফিসার বাসন্তি লতা দাস।
সমাবেশে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন , অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক নাদিম সারওয়ার, জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার গোলাম নবী, জেলা সমাজসেবা অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মোস্তাফিজুর রহমান,  যুব উন্নয়ন অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক কেএম আব্দুল মতিন, সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মাহমুদা শারমিন নেলী। এসময় বক্তরা কন্যাদের অধিকার ও বাল্যবিয়ের কুফলসহ কন্যাদের অধিকার সম্পর্কে আলোচনা করেন।
অনুষ্ঠানে শিক্ষার্থীরা সচেতনতামুলক নাটক এবং নাচ পরিবেশন করেন। শেষে ২৭ জন শিক্ষার্থীকে এ্যালুমনাই ক্রেস্ট, সনদ ও উপহার এবং  জিপিএ-এ প্লাস প্রাপ্ত ৬০ জন মেধাবী নারী শিক্ষার্থীকে উপহার সহ সম্মাননা প্রদান করা হয়। সমাবেশে মাধ্যমিক স্তরের ৭৩৯ জন শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করেন। এ সময় জেলার ৪৪ টি কলেজের অধ্যক্ষ সহ বিভিন্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ৯ জন প্রধানসহ ১৮ জন শিক্ষক ও বিদ্যালয় ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতিগণ উপস্থিত ছিলেন।

সিংড়ায় ২১০ গ্রাম হিরোইনসহ মাদক ব্যবসায়ি গ্রেফতার

0

স্টাফ রিপোর্টার 

নাটোরের সিংড়া থেকে ২১০ গ্রাম ও হিরোইন সহ এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। গতকাল নাটোর বগুড়া মহাসড়কের নিঙ্গইন নামক স্থানে চেক পোস্ট বসিয়ে এই হিরোইন সহ তাকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃত ব্যক্তি রাজশাহী জেলার কাশিয়াডাঙ্গা থানার নবগঙ্গা গ্রামের বদিউজ্জানের ছেলে কা ালিউদ্দন ৪০।

র‌্যাবের এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয় , হতকাল ১১ টায় সিপিসি-২, নাটোর ক্যাম্প, র‌্যাব-৫, রাজশাহীর একটি অপারেশন দল গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে নাটোর হতে বগুড়াগামী মহাসড়কের নিঙ্গইন নামক স্থানে চেকপোষ্ট পরিচালনা করে । এসময় ২১০ গ্রাম হেরোইন ও একটি মোটরসাইকেল সহ কামাল উদ্দিনকে গ্রেফতার করা হয়।