বিষন্নতা// রেজাউল করিম রেজা

0
আশ্চার্য  এক বিষন্নতা বোধ করি সব সময়
কোন কিছুই ভাল লাগে না আর
বন্ধু -বান্ধব, প্রিয় সাইফুলের চায়ের স্টল
অথবা নিজের অফিস, সহকর্মিদের আলোচনা
সমালোচনা, দেশ,সমাজ,রাজনীতি
না কিছুই ভাল লাগেনা আর।
সেকি শুধু বয়োবৃদ্ধি,  না সমাজের অসংগতি
চাল, ডাল, সবজি, মাছ, মাংস, সব কিছুর দাম বেড়েছে
কিন্তু আমাদের বেতন বাড়েনা।
সকাল থেকে রাত্রী অবধী এই আমি ছুটে চলেছি
খবরের ফেরিওয়ালা হয়ে,
যৌবনের দুরন্ত সময় পার করেছি
জীবনের ঝুকি নিয়ে, তুলে ধরেছি নানা অসংগতি
লক্ষ্য একটাই সমাজটাকে বদলাব বলে,
পরিবর্তন হয়েছে কি কিছু?হয়নি কিছুই!
ক্ষমতার বদল হয়েছে, তৈরি হয়েছে নতুন নতুন কোটিপতির
বেতন বেড়েছে কাগজে কলমে,বাস্তবে কমেছে,
মিডিয়া মালিকদের স্বেচ্ছা চারিতা আর সেন্সর বোর্ডের কাঁচি রক্তাক্ত করেছে হৃদয়,
প্রতিবাদের শব্দ চয়ন এখন বিভিষিকা মনে হয়।
তাই ভাল লাগেনা কিছুই আর,
বরং জানালার ফাক দিয়ে দুফালি আকাশ দেখি,
বিষন্ন বদনে দেখি ঝাক ঝাক কাল মেঘ
ঢেকে দেয় সূর্যের আলো, আমার অন্ধকার ঘরে ।
ভাল লাগেনা তারা শঙ্কর, বিভুতি ভুষণ শরৎ চন্দ্র
রবীন্দ্র নাথ, সেক্সপিয়ার, কোন কিছুই না।
বরং অদ্ভুত বিষন্নতায় নিজেকে ঘর বন্দী
করেই খুঁজে পাই মুক্তির পথ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে