প্রতীক বরাদ্দের আগে ভোট চাওয়ায় প্রার্থীকে শোকজ

  • শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল, ২০২৪
প্রতীক বরাদ্দের আগে ভোট চাওয়ায় প্রার্থীকে শোকজ#সংবাদ শৈলী
স্টাফ রিপোর্টার
আসন্ন নাটোর সদর উপজেলা পরিষদের নির্বাচনে প্রতীক বরাদ্দের আগেই দোয়াত কলম মার্কায় ভোট চাওয়ায় নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগে চেয়ারম্যান প্রার্থী মো. রিয়াজুল ইসলাম মাসুমকে শোকজ করা হয়েছে।
শুক্রবার ( ১৯ এপ্রিল) নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা ও জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা আব্দুল লতিফ শেখ স্বাক্ষরিত চিঠিতে এই শোকজ নোটিশ ইস্যু করা হয়।
শোকজ নোটিশে বলা হয়, আপনি রিয়াজুল ইসলাম ৬ষ্ঠ উপজেলা পরিষদ সাধারণ নির্বাচনে নাটোর সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন। আপনি গত ১৮ এপ্রিল (বৃহস্পতিবার) গোকুলনগর জুনিয়র বন্ধুমহল ক্লাব ও গোকুলনগর যুব সম্প্রদায়ের উদ্যোগে আয়োজিত ইসলামী জালসা ও তাফসিরুল কোরআন মাহফিলে আগত মুসল্লিবৃন্দ ও এলাকাবাসীর কাছে দোয়া সহযোগিতা ও ভোট প্রার্থনা করেছেন এবং প্রতীক বরাদ্দের আগেই আপনার ফেসবুক আইডি থেকে দোয়াত কলম মার্কায় ভোট প্রার্থনা করছেন। এছাড়াও আজ দিঘাপতিয়া ইউনিয়ন পশ্চিম হাগুড়িয়া জামে মসজিদে উপস্থিত মুসল্লিবৃন্দ ও এলাকাবাসীর কাছে দোয়া সহযোগিতা ও ভোট প্রার্থনা করেছেন, যা উপজেলা পরিষদ (নির্বাচন আচরণ) বিধিমালা, ২০১৬ এর বিধি-৫ (১) লংঘন হয়েছে। যা শাস্তিযোগ্য অপরাধ। এমতাবস্থায় উপজেলা পরিষদ (নির্বাচন আচরণ) বিধিমালা, ২০১৬ এর বিধি-৫ (১) লংঘনের দায়ে কেন আপনার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে না তার ব্যাখ্যা আগামী ২১ এপ্রিল বিকেল সাড়ে ৩টায় সশরীরে নিম্ন স্বাক্ষরকারীর কার্যালয়ে উপস্থিত হয়ে প্রদানের জন্য অনুরোধ করা হলো।
নাটোর সদর উপজেলায় ৬ প্রার্থীরা হলেন- জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও বর্তমান চেয়ারম্যান মো. শরিফুল ইসলাম রমজান, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক রিয়াজুল ইসলাম মাসুম, সাবেক সভাপতি জেলা ছাত্রলীগ মোক্তারুল ইসলাম আলম, উপজেলা যুবলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক জামিল হোসেন মিলন, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আনোয়ার হোসেন আনু, সাবেক ছাত্রদল নেতা ইশতিয়াক আহমেদ হিরা।
সদর উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী রিয়াজুল ইসলাম বলেন, আজ শুক্রবার একটি মসজিদে নামায শেষে নির্বাচনী প্রচারণায় যাই। কিন্তু মসজিদে বা ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানে নির্বাচনী প্রচারণা করা যাবে না বিষয়টি আমার জানা ছিল না। তবে আমি কোনো প্রতীকে প্রচারণা করিনি, এটা সম্পূর্ণ মিথ্যা।
আগামী ১৮ এপ্রিল থেকে ২০ এপ্রিল আপিল, আপিলের নিষ্পত্তি ২১ এপ্রিল, মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার ২২ এপ্রিল। এরপরে ২৩ এপ্রিলে প্রতীক বরাদ্দ এবং
আগামী ৮ মে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
COPYRIGHT 2023 sangbadshoily, ALL RIGHT RESERVED
Site Customized By NewsTech.Com