পরকীয়াঃ রাতে প্রেমিকা সকালে প্রেমিকের আত্মহত্যা

0
চুয়াডাঙ্গায়  নিখোঁজের ৩ দিন পর এক গৃহবধূর বিবস্ত্র লাশ উদ্ধার#সংবাদ শৈলী

সংবাদ শৈলী ডেস্কঃ

স্ত্রী সন্তান থাকলেও পরকিয়ায় লিপ্ত হন দুজন। কিন্তু বেশীদিন টিকেনি প্রেমিক প্রেমিকার অভিসার লীলা। বিষয়টি জানাজানি হলে দুজনেই আত্ম হত্যা করে। ঘটনাটি ঘটে শেরপুর জেলার নকলা উপজেলার গোহালেরকান্দা গ্রামে । ওই গ্রামে শুশুক্রবার রাতে প্রেমিকা এবং শনিবার সকালে প্রেমিক গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে। তারা হলেন, গোহালেরকান্দা গ্রামের মৃত ইয়াদ আলীর ছেলে ভিডিপি সদস্য ছামেদুল ইসলাম হেলাল (৩৫) এবং গামেন্ট শ্রমিক সোবাহান আলীর স্ত্রী হামিদা বেগম (২৮) ।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায, নকলা গোহালেরকান্দা গ্রামের হামদিা বেগমের স্বামী সোবাহান আলী গাজীপুরে একটি সোয়েটার কারখানায় শ্রমিকের কাজ করেন। স্বামীর অবর্তমানে একই গ্রামের ভিডিপি সদস্য ছামেদুল ইসলাম হেলালের সাথে পরকিয়ার সম্পর্ক গড়ে উঠে। অথচ প্রেমিক প্রেমিকা দুজনেই বিবাহিত এবং সন্তান রয়েছে। বিষয়টি জানাজানি হলে দুজনেই বিপাকে পড়ে। এক পর্যায়ে গত শুক্রবার সন্ধায় হামিদা বেগম বাড়ীর পাশেই একটি জিগার গাছের সাথে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেন।
এদিকে প্রেমিকার আত্মহত্যার সংবাদ পেয়ে শনিবার সকালে প্রেমিক ভিডিপি সদস্য ছামেদুল ইসলাম হেলাও আত্মহত্যা করেন। সংবাদ পেয়ে নকলা থানা পুলিশ দুজনের লাশ উদ্ধার করে।
এ বিষয়ে নকলা থানার এসআই সবুজ মিয়া জানান, এ ঘটনায় অপমৃত্যু মামলা রেকর্ড করা হয়েছে।লাশ দুটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য জেলা হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে