তিন বছরেও শেষ হয়নি পাঁচ কি.মি. রাস্তা সংস্কার বড়াইগ্রামে অবিলম্বে রাস্তা সংস্কার কাজ সম্পন্ন করার দাবীতে মানববন্ধন

0
তিন বছরেও শেষ হয়নি পাঁচ কি.মি. রাস্তা সংস্কার বড়াইগ্রামে অবিলম্বে রাস্তা সংস্কার কাজ সম্পন্ন করার দাবীতে মানববন্ধন #সংবাদ শৈলী

স্টাফ রিপোর্টারঃ
ঠিকাদারের চরম অবহেলা এবং সড়ক ও জনপথ বিভাগের যথাযথ তদারকির অভাবে প্রায় তিন বছরেও বড়াইগ্রাম থানা মোড়-রয়না ভরট হাট রাস্তা সংস্কার কাজ শেষ না হওয়ার প্রতিবাদে এবং দ্রæত রাস্তা চলাচল উপযোগী করে পৌরবাসীর দুর্ভোগ লাঘবের দাবীতে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার বড়াইগ্রাম পৌর গেটের সামনে সংস্কারাধীন সড়কের পাশে আয়োজিত ঘন্টাব্যাপী মানববন্ধনে দোকানপাট বন্ধ রেখে ব্যবসায়ীসহ প্রায় সর্ব সাধারন মানুষ অংশগ্রহণ করেন।

মানববন্ধনকালে বড়াাইগ্রাম সরকারী কলেজের সহকারী অধ্যাপক আমিনুল হক মতিন, পৌরসভার প্যানেল মেয়র ফজলুল হক ফজের, পৌর যুবলীগের সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম বাবর, মুক্তিযোদ্ধা ফরিদউদ্দিন, উপজেলা প্রেসক্লাব সভাপতি অহিদুল হক, জেলা ছাত্রলীগের উপ অর্থ বিষয়ক সম্পাদক কাউছার আহমেদ অপু, ওয়ার্ড কাউন্সিলর আতোয়ার হোসেন লিটন, রফিকুল ইসলাম ও আব্দুস সামাদ, পৌর শ্রমিক লীগের সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম ও শ্রমিক নেতা রবিউল করিম বক্তব্য রাখেন।

এ সময় বক্তারা আগামী সাত দিনের মধ্যে রাস্তার কাজ শেষ করার আলটিমেটাম দিয়ে বলেন, জেলা সদরের সাথে বড়াইগ্রাম ও গুরুদাসপুর উপজেলার সংযোগ সড়কের বড়াইগ্রাম থানা মোড় থেকে রয়না ভরট হাট পর্যন্ত ব্যস্ততম অংশটুকু ঠিকাদার প্রায় তিন বছর ধরে ভেঙ্গে ফেলে রেখেছেন। বড়াইগ্রাম পৌর শহরের অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ এ রাস্তার পাশে সরকারী হাসপাতাল, পৌরভবন, থানা, সাবরেজিষ্ট্রি অফিস, ছোট-বড় চারটি বাজার, সরকারী কলেজ ও কমপক্ষে ১০টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা রয়েছে।

ইতিমধ্যে কাজের নির্ধারিত সময় এবং পরবর্তীতে বর্ধিত সময়ও শেষ হয়ে গেলেও সংস্কার কাজ শেষ হয়নি। এতে
ধুলা-বালিতে এলাকার মানুষ নাজেহাল হয়ে পড়েছেন। ভাঙ্গা রাস্তায় বালি-পাথরের কারণে হাঁটাচলাসহ যান চলাচলেও সীমাহীন ভোগান্তি হচ্ছে। তাই দ্রুত রাস্তার কাজ শেষ করা না হলে নির্ধারিত সময়ের পর ঢাকাগামী মহাসড়ক অবরোধসহ বৃহত্তর কর্মসূচি দেয়ার হুমকি দেন তারা।

এ ব্যাপারে নাটোর সড়ক ও জনপথ (সওজ) বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী আব্দুর রহিম জানান, বর্ষার কারণে রাস্তার কাজ বন্ধ ছিল। আমি রাস্তার কাজ দ্রুত শেষ করার জন্য ঠিকাদারকে বলবো।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে